বৃহস্পতিবার, ১৭ Jun ২০২১, ১১:২৪ অপরাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
যশোর বাঘারপাড়ায় নসিমন চালক ফজলুর হত্যার ঘটনা ভিন্নখাতে নেয়ার চেষ্টা….সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ

যশোর বাঘারপাড়ায় নসিমন চালক ফজলুর হত্যার ঘটনা ভিন্নখাতে নেয়ার চেষ্টা….সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ

বিজ্ঞাপন

স্টাফ রিপোর্টার: যশোরের বাঘারপাড়ার সুকদেবনগর গ্রামের নসিমন চালক ফজলুর রহমান হত্যার ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার অভিযোগ তুলেছেন পরিবারের লোকজন। মঙ্গলবার প্রেসক্লাব যশোরে এক সংবাদ সম্মেলনে নিহত ফজলুর রহমানের মা হাসিলা খাতুন অভিযোগ করেন, পরিকল্পিতভাবে সন্ত্রাসীরা তার ছেলেকে হত্যা করে মাঠে ফেলে রেখে গেলেও অজ্ঞাত কারণে পুলিশ মামলাটি হত্যামামলা হিসেবে রেকর্ড না করে অপমৃত্যু মামলা রুজু করেন। এ বিষয়ে আদালত তদন্তপূর্বক পিবিআইকে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশনা দেয়া হলেও তা কার্যকর হচ্ছেনা বলে তিনি জানান।
সংবাদ সম্মেলনে নিহতের মা হাসিলা খাতুন বলেন, গত ১৬/৮/২০১৯ তারিখে আমার ছেলে ফজলুর রহমান ইঞ্জিনচালিত আলম সাধূ নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়। কিন্তু সেদিন আর সে বাড়ি ফিরে আসেনি। পরের দিন সকালে স্থানীয় গলগলিয়া মাঠে তার ক্ষত বিক্ষত লাশ পড়ে থাকতে দেখে গ্রামবাসী আমাদের খবর দেয়। বিষয়টি তাৎক্ষনিক বাঘারপাড়া থানা পুলিশকে অবহিত করলে থানার দারোগা মাহবুব এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। তিনি বলেন, এসময় ছেলে হত্যার বিষয়ে একটি হত্যামামলার এজাহার থানায় জমা দিলেও দারোগা মাহবুব মামলাটি গ্রহন না করে একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করে লাশের ময়না তদন্তের জন্য যশোর মর্গে প্রেরণ করেন।
নিহত ফজলুর রহমানের মা হাসিলা খাতুন বলেন, আমরা পরবর্তীতে ছেলে হত্যার মূল রহস্য জানতে পারি। একটি মেয়েলি ঘটনাকে কেন্দ্র করে পার্শ্ববর্তী নওয়াপাড়া গ্রামের নওয়াব আলীর ছেলে মিলন মোল্যা, তার স্ত্রী ময়না খাতুন, নাহিদ আলী সিকদারের ছেলে সুজন ও একই গ্রামের তুরজাউল পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে মাঠে ফেলে রেখে যায়। বিষয়টি তাৎক্ষনিক থানা পুলিশকে জানালেও গুরুত্ব দেয়নি।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, থানা পুলিশ মামলা নিতে অনীহা প্রকাশ করায় আমি গত ১৮/৯/২০১৯ তারিখে বিজ্ঞ জুডিসিয়াল সিনিয়র আমলী আদালত (বাঘারপাড়া) উল্লেখিত আসামীদের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যামামলা দায়ের করি। এসময় বিচারক মামলাটি পিবিআই যশোরকে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন। কিন্তু প্রায় তিন মাস পেরিয়ে গেলেও এখনো পিবিআই আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়নি। সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন, আসামীরা এলাকার প্রভাবশালী ও ধনাঢ্য হওয়ায় তারা মামলাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছে। এজন্য তিনি এ বিষয়ে পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
সংবাদ সম্মেলনে নিহত ফজলুর রহমানের বাবা বাবর আলী সরদার, বড়ভাই নাজমুল রহমান, মামা সিরাজুল ইসলামসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »