শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৬:০৩ অপরাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
অর্থনীতি বাঁচাতে ঐক্যের সরকার চান শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট

অর্থনীতি বাঁচাতে ঐক্যের সরকার চান শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট

জয় বাংলা নিউজ ডেস্ক :

শ্রীলঙ্কার নতুন প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহে সংস্কারের মাধ্যমে দেউলিয়া অর্থনীতিকে পুনরুজ্জীবিত করার জন্য একটি সর্বদলীয় ঐক্যের সরকার গঠনের জন্য সংসদ সদস্যদের আনুষ্ঠানিকভাবে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।
অর্থনৈতিক সঙ্কটের কারণে গণবিক্ষোভের প্রেক্ষিতে পূর্বসূরি গোতাবায়া রাজাপাকসে পদত্যাগ করে দেশ ছেড়ে পালানোর পর বিক্রমাসিংহে এই মাসের শুরুর দিকে প্রেসিডেন্টের কার্যভার গ্রহণ করেন।
ক্যান্ডিতে বৌদ্ধ ধর্মের অন্যতম পবিত্র স্থান টেম্পল অফ দি টুথ নামক মন্দিরে প্রভাবশালী সন্ন্যাসীদের সাথে শনিবার এক বৈঠকে বিক্রমাসিংহে তার পরিকল্পনার রূপরেখা তুলে ধরেন।
বিক্রমাসিংহে ক্ষমতা গ্রহণের পর বৌদ্ধ ধর্মযাজকদের সাথে তার প্রথম বৈঠকে বলেছেন, “প্রেসিডেন্ট হিসেবে, আমি একটি নতুন যাত্রা শুরু করতে চাই।” তিনি বলেন, “আমি সব দলকে একত্রিত করে যাত্রা শুরু করতে এবং সেই সাথে সর্বদলীয় সরকার গঠন করতে চাই।” তিনি ঐক্য সরকারে যোগ দিতে সকল আইনপ্রণেতার কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন।
রাজাপাকসের বড় ভাই মাহিন্দা পদত্যাগ করার পরে বিকল্প নেতৃত্ব না থাকায় সাবেক বিরোধী দলীয় এমপি ৭৩ বছর বয়সী বিক্রমাসিংহে মে মাসে ষষ্ঠবারের মতো প্রধানমন্ত্রীর পদ গ্রহণ করেছিলেন।
অর্থনৈতিক সংকটের কারণে ক্ষুব্ধ কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী প্রেসিডেন্টের প্রাসাদে ঢুকে পড়ার পর গত ৯ জুলাই গোটাবায়া পালিয়ে যাওয়ার পরে বিক্রমসিংহে প্রেসিডেন্ট হন।
গোটাবায়া সিঙ্গাপুরে পালিয়ে যান এবং সেখান থেকে তিনি পাঁচ দিন পর পদত্যাগ করেন। বিক্রমাসিংহে অন্তবর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট হন এবং পরে সংসদে একটি ভোটে নির্বাচিত হয়ে তার পদ নিশ্চিত করেন।
শ্রীলঙ্কার ২ কোটি ২০ লাখ মানুষ দীর্ঘ ব্ল্যাকআউট, রেকর্ড মুদ্রাস্ফীতি এবং খাদ্য, জ্বালানি ও ওষুধের ঘাটতি মোকাবেলা করছে।
গত বছরের শেষের দিকে সবচেয়ে প্রয়োজনীয় পণ্য আমদানির অর্থ পরিশোধের জন্য দেশটির বৈদেশিক মুদ্রার মজুদ শেষ হয়ে যায়।
এপ্রিল মাসে, শ্রীলঙ্কা তার ৫১ বিলিয়ন ডলার বিদেশী ঋণ খেলাপি হয় এবং আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের সাথে বেলআউট নিয়ে আলোচনা শুরু করেছে।
বিক্রমাসিংহে ভিক্ষুদের বলেছেন, অর্থনীতি এ বছর ৭.০ শতাংশ সংকোচনের সাথে আরও হ্রাস পাবে, তবে পরের বছর পুনরুদ্ধারের আশা করা হচ্ছে।
“আমি এই অর্থনীতিকে পুনরায় স্থিতিশীল করতে এবং অর্থনীতিকে এমনভাবে গড়ে তুলতে কাজ করছি যাতে দেশটি ২০২৩, ২০২৪ সালের মধ্যে উন্নত হতে পারে।
তিনি বুধবার থেকে সংসদের নতুন অধিবেশন আহ্বান করেছেন এবং বিরোধী দলগুলির সদস্যদের সরকারে স্থান দেওয়ার জন্য ১৮ সদস্যের মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণ করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।
:বাসস

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »