সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৩:২৮ পূর্বাহ্ন

কবিতাঃ পরিবার কল্যাণ সহকারী

কবিতাঃ পরিবার কল্যাণ সহকারী

কবিতাঃ পরিবার কল্যাণ সহকারী

কবিঃ খালেদা বেগম লাভলী

 

সাড়ে তেইশ হজারের বিশাল বাহনী

পরিবার কল্যাণ সহকারী।

দম্পতি রেজিষ্ট্রেশান করছে তারা

ঘুরছে বাড়ী বাড়ী ।

পরিবার বর্গ কখনো অনাহারে,

সন্তান ঘরে কাঁদে।

মা যে তখন আটকে আছে,

রেজিষ্ট্রেশানের ফাঁদে।

ছিয়াশী হাজার গ্রাম বাংলার

কোন বাড়ী বাকী নাই।

এমন কোন ঘর নাই যেখানে

পা ওদের পরে নাই।

কৃষক যেমন ফসল ফলায়

রোদ, বৃষ্টি, ঝড়ে,

কাজের স্বার্থে ওরাও তেমন

বৃষ্টিতে ভেজে, রোদে পুড়ে।

ই,পি,আই, ও স্যাটেলাইট ক্লিনিকের

দাওয়াত দিচ্ছে প্রতিমাসে।

মা ও শিশুরা সেবা নিতে তাই,

নিয়মিত সেখানে আসে।

কমিউনিটি ক্লিনিকে দিচ্ছে সেবা

সপ্তাহে তিন দিন।

মা ও শিশুর সেবা প্রদানে

করছে নিজেকে বিলীন।

মা ও শিশুর মৃত্যু রোধেও

ওরা রাখছে অবদান।

স্থায়ী ও দীর্ঘ মেয়াদী পদ্ধতি নিতে

করছে ক্লায়েন্ট রেফার।

জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রনের মূল সৈনিক

যুদ্ধরত রয়েছে ওরা।

তবু কেন ওরা বঞ্ছিত হচ্ছে??

ওদেরই কপাল পোড়া।

জনসংখ্যারোধে দিবা ও রাত্রি

যারা করছে এত কাজ।

শ্রেনী বিন্যাসের কঠিন পীড়নে

পুড়ছে কেন আজ??

চাতক পাখীর মতই চেয়ে রয়

পুরো চাকুরী জীবন ধরে।

প্রমোশান থেকেও বঞ্ছিত ওরা

হীন মন্যতায় ভোগে।

কেন ওরা বৈষম্যের স্বীকার??

প্রতিবাদ মুখোর হও, ওঠো জেগে।

অবহেলিত এ মাঠকর্মচারীগন

যেন অবহেলারই সৃষ্টি।

ওদের মুখে হাসি ফোটাতে কামনা

করছি ঊর্ধ্বতন মহলের সু-দৃষ্টি

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »