শনিবার, ২৫ Jun ২০২২, ০১:৫৮ অপরাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
শিরোনাম :
এইতো জীবন বিশিষ্ট শিল্পপতি মরহুম এম এ হান্নানের মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় বানভাসী মানুষের পাশে এম পি অসীম কুমার উকিল শালিখা থেকে অস্ত্রসহ মেম্বার আটক যশোর র‌্যাবের হাতে ঝিকরগাছা কায়েমকোলা বাজারের দুইটি দোকান থেকে প্রায় ৯ লাখ টাকা চুরির ঘটনায় তিনজন আটক উন্নয়নের ব্যাপারে শেখ হাসিনা কারো সাথে আপোষ করেন না…যশোর-৩ আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ পদ্মা সেতু যোগাযোগ ব্যবস্থায় সূতিকাগার….. প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতুতে ৬০ কিলোমিটারের বেশি গতিতে চালানো যাবে না গাড়ি মিচেলের ইতিহাস করলেন টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি বন্যাকবলিত এলাকায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সংযোগ স্থাপন
দেশে বৃষ্টি ও বন্যার পূর্বাভাস

দেশে বৃষ্টি ও বন্যার পূর্বাভাস

জয় বাংলা নিউজ প্রতিবেদক:

সম্প্রতি টেকনাফ দিয়ে দেশে প্রবেশ করেছে দক্ষিণ-পশ্চিমি মৌসুমি বায়ু-বর্ষা। তারপর তা দ্রুত বিস্তার লাভ করছে। গতকাল চট্টগ্রাম হয়ে সিলেটের দিকে এটি ধাবিত হয়। ক্রমে ঢাকা, রংপুর বরিশাল শেষে খুলনা বিভাগে বিস্তৃত হবে। যেদিকে এ মেঘমালা ধাবিত হবে সেদিকেই ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হতে পারে।

অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশীদ জানান, চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহের শেষ নাগাদ বর্ষায় ছেয়ে যাবে গোটা দেশ। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগ পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে। আরো অগ্রসর হওয়ার অনুকূল পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এর প্রভাবে দেশের বেশির ভাগ এলাকায় থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। উপকূল ও উত্তরাঞ্চলে তুলনামূলক বেশি বৃষ্টি হচ্ছে।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে বন্যার সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বন্যাপ্রবণ এলাকায় সংগ্রহের উপযোগী ফসল আগামীকাল ৫ জুনের আগেই সংগ্রহ করতে হবে। বন্যার সতর্কবার্তায় উল্লেখ করা হয়েছে, চলতি মাসের প্রথম ও দ্বিতীয় সপ্তাহে দেশের উত্তরের তিন বিভাগ—রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেটে ভারী বর্ষণ এবং উজানে ভারতীয় ভূখণ্ডে ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণের কারণে দেশের উত্তরের নদনদীতে পানি বৃদ্ধি পেতে পারে। এতে উত্তরের তিন বিভাগের নিচু এলাকাগুলো বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়ে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে। একই সঙ্গে দুর্বল বেড়িবাঁধগুলো ভেঙে গিয়ে নতুন এলাকা প্লাবিত হতে পারে। সতর্কবার্তায় বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় দুর্বল বেড়িবাঁধগুলো মেরামত করে এলাকাগুলোয় বন্যার পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে ত্রাণ সংস্থাগুলোকে প্রস্তুত থাকার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া বন্যাপ্রবণ এলাকায় সংগ্রহের উপযুক্ত কৃষি ফসল ৫ জুনের আগেই সংগ্রহ করতে বলা হয়েছে। নতুবা তা বন্যার পানিতে তলিয়ে যেতে পারে বলেও সতর্ক করা হয়েছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র বলছে, বর্ষা মৌসুমের কারণে চলতি জুন মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত দেশের ভেতর এবং উজানে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। এজন্য এ সময় উত্তর-পূর্বাঞ্চলে নদীগুলোর পানি কোথাও কোথাও দ্রুত বেড়ে বিপত্সীমা অতিক্রম করতে পারে। দেশের ভারী বৃষ্টির কারণে দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল, উত্তর-মধ্যাঞ্চল ও দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের কিছু স্থানে স্বল্পমেয়াদি বন্যা দেখা দিতে পারে। এদিকে চলতি মাসের দীর্ঘমেয়াদি আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়, চলতি মাসে স্বল্পমেয়াদি বন্যার পাশাপাশি দেশের কোথাও কোথাও বিচ্ছিন্নভাবে মৃদু থেকে মাঝারি মাত্রার তাপপ্রবাহও বয়ে যেতে পারে। বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। এর মধ্যে একটি মৌসুমি নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে। উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং এর কাছাকাছি বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালার সৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে। সমুদ্র বন্দরগুলো, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং এর কাছাকাছি বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, গতকাল দেশের চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরগুলোকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক বলেন, পশ্চিমা লঘুচাপের প্রভাবে দেশের অভ্যন্তরে কম শক্তিমাত্রার বজ্রমেঘ তৈরি হচ্ছে। এর প্রভাবে সারা দেশে বৃষ্টি হচ্ছে। একই সঙ্গে বঙ্গোপসাগরে গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালা তৈরি অব্যাহত রয়েছে। মৌসুমি বায়ুতে প্রচুর জলীয় বাষ্প থাকে; যা প্রচুর বৃষ্টিপাত ঘটায়। দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে যে বায়ু প্রবাহিত হয় সেখানে জলীয় বাষ্পের আধিক্য থাকে। এই জলীয় বাষ্প মেঘ তৈরি করে। যেটা বাংলাদেশ ও ভারতে প্রচুর বৃষ্টিপাত ঘটায়। একে বলা হয় মৌসুমি বৃষ্টিপাত। জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে বৃষ্টি হয়ে থাকে। মৌসুমি বায়ুর সক্রিয়তা ও নিষ্ক্রিয়তার ওপর বৃষ্টিপাতের মাত্রা নির্ভর করে জানিয়ে তিনি বলেন, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় হলে বেশি বৃষ্টি হয় আর নিষ্ক্রিয় হলে বৃষ্টি কম হয়। আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশীদ বলেন, সাধারণত ভারতের আসাম ও মেঘালয়ে ভারী বৃষ্টি হলে এর প্রভাবে বাংলাদেশে বন্যা দেখা দেয়। চলতি জুনের প্রথম দিকে সিলেট অঞ্চলে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। ফলে দেশের কয়েকটি স্থানে স্বল্পমেয়াদি বন্যা হতে পারে। হাওর ও সীমান্তবর্তী উপজেলার নিম্নাঞ্চলে গত এপ্রিলের শেষ দিকে এক দফা এবং মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে দ্বিতীয় দফায় আকস্মিক বন্যা হয়। সিলেট ও সুনামগঞ্জের অন্তত ১৪টি উপজেলা এই হঠাত্ বন্যার শিকার হয়।

অন্যদিকে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (বাপাউবো) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া বলেন, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ুর ফলে দেশের উজানে ভারতের আসাম, মেঘালয়, অরুণাচল, ত্রিপুরা ও হিমালয় পাদদেশীয় অববাহিকার পাশাপাশি বাংলাদেশের অভ্যন্তরেও মৌসুমি বৃষ্টিপাতের প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। জুন মাসের মধ্যভাগ পর্যন্ত ব্রহ্মপুত্র-যমুনা এবং গঙ্গা-পদ্মা অববাহিকায় বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা নেই। এ সময়ে তিস্তা অববাহিকা, উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার-মেঘনা অববাহিকা এবং উপকূলীয় অঞ্চলের কিছু স্থানে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এতে ওই অঞ্চলের কয়েকটি স্থানে ভারী বৃষ্টিপাতের পরিপ্রেক্ষিতে সময়বিশেষে বিভিন্ন নদীর পানি দ্রুত বাড়তে পারে এবং কোথাও কোথাও সাময়িকভাবে বিপত্সীমা অতিক্রম করতে পারে। আগামী দুই সপ্তাহে দক্ষিণ-পূর্ব পার্বত্য অববাহিকাভুক্ত নদ-নদীগুলোর পানি ঐ সময়ে দ্রুত বাড়তে পারে। সেখানকার নিম্নাঞ্চলে স্বল্পমেয়াদি বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পারে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »