বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০১:০৬ অপরাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
শিরোনাম :
হামলা ও নৈরাজ্য সৃষ্টির প্রতিবাদে যশোর ঝিকরগাছায়  এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত দেশে সাম্প্রদায়িক হামলা / মামলায় ৪৫০জন গ্রেপ্তার প্রশ্নফাঁসে জড়িতদের সর্বনিম্ন ৩ এবং সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ড কুমিল্লার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে  নির্দেশ সারাদেশে  ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে ৭ জনের মৃত্যু যশোর শিক্ষা বোর্ডের দুর্নীতি সময় চেয়েছে তদন্ত কমিটি যশোরে সামপ্রদায়িক সন্ত্রাস রুখে দেওয়ার ঘোষণা যুবলীগের যবিপ্রবিতে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসায় রোবোটিক্স প্রযুক্তি ব্যবহার শীর্ষক সেমিনার যশোর শহর যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক মেহেবুব রহমান ম্যানসেলের আয়োজনে  কেক কেটে শহীদ শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালন আজ শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন
সাতক্ষীরায় নির্ধারিত হলো আমন ধান উৎপাদনের লক্ষ্য মাত্রা

সাতক্ষীরায় নির্ধারিত হলো আমন ধান উৎপাদনের লক্ষ্য মাত্রা

বিজ্ঞাপন

এম আকাশ, সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ, তারই প্রেক্ষিতে দেশের অধিকাংশ মানুষের জীবিকা নির্বাহের একমাত্র মাধ্যম কৃষিকাজ। গ্রামীন অর্থনীতি আজও কৃষিকে প্রাধান্য দেয়,কেনোনা আধুনিক সমাজে খাদ্য সংকট নতুন করে ভাবার বিষয়।এজন্য জেলা-উপজেলা গুলোতে নির্ধারন করে দেওয়া হয় ধানের ঊৎপাদন সীমা । এই লক্ক্য মাত্রা নির্ধারন থেকে বাদ যায়না, সাতক্ষীরা জেলাটিও। তারই বহিঃপ্রকাশ স্বরুপ  আশাশুনি উপজেলায় চলতি মৌসুমে আমন ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে ৯ হাজার ৫০০ হেক্টর জমি। লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হলে ২৬ হাজার ৪৩৮ মেঃ টন ধান উৎপাদিত হবে। আশাশুনি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আশাশুনি উপজেলায় চলতি মৌসুমে আমন ধান চাষের ক্ষেত্রে কৃষকদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রক্ষা করে ধান চাষের অগ্রগতি ও উৎপাদনের ক্ষেত্র লাভজনক করতে কাজ করে আসছে। এজন্য এবছর উপজেলা ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। কম জমিতে বেশী ফসল উৎপাদনে সম্ভব হতে পারে এজন্য উপশী জাতের ধান চাষের জন্য কৃষকদের উৎসাহিত করা হচ্ছে। যার ফলশ্র“তিতে উপশী জাতের ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে ৯ হাজার ৩৫০ হেক্টর জমিতে এবং স্থানীয় জাতের লক্ষ্যমাত্রা ১৫০ হেক্টর। উপশী জাতের ফসল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে প্রতি হেক্টরে ২.৮ মেঃ টন হিসাবে ২৬ হাজার ১৮০ মেঃ টন। অন্যদিকে স্থানীয় জাতের ধানের ফসল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে প্রতি হেক্টরে ১.৭২ মেঃ টন হিসাবে ২৫৮ মেঃ টন। দু’টি মিলে মোট ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে ২৬ হাজার ৪৩৮ মেঃ টন। অপরদিকে গত বছর (২০১৮-১৯) উপশী জাতের ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৯০০০ হেক্টর এবং স্থানীয় জাতের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১৩০ হেক্টর জমিতে। এবছর সেখানে ৩৭০ হেক্টর বেশী জমিতে চাষাবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রাজিবুল হাসান জানান, আবহাওয়া ভাল থাকলে এবং পোকা মাকড়ের উপদ্রব প্রশমন সম্ভব হলে ফসল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবে ইনশাল্লাহ।

 

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »