বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৯:৫৫ অপরাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
যশোরে মৃত ম্বামীর দেনার টাকা পরিশোধ না করায় স্ত্রী-ছেলেসহ তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

যশোরে মৃত ম্বামীর দেনার টাকা পরিশোধ না করায় স্ত্রী-ছেলেসহ তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

জয় বাংলা নিউজ প্রতিবেদক:

৯ লাখ টাকা ধার নিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে আত্মসাতের অভিযোগে ওয়ান ব্যাংকের কর্মকর্তা, শিক্ষা বোর্ডের কর্মচারীসহ তিন জনের বিরুদ্ধে যশোর আদালতে মামলা হয়েছে। বুধবার শহরের বারান্দিপাড়ার অম্বিকা বসু লেনের মৃত আব্দুল আজিজুর রহমানের ছেলে মনির হোসেন বাদী হয়ে এ মামলা করেছেন। সিনিয়র জুডিসিয়ার ম্যাজিস্ট্রেট অভিযোগে তদন্ত করে পিবিআইকে প্রতিবেদন জমা দেয়ার আদেশ দিয়েছেন।
আসামিরা হলো যশোর শহরতলীর শেখহাটি জামরুলতলা এলাকার বাসিন্দা শিক্ষা বোর্ডের সাবেক কর্মকর্তা মৃত কামাল শিকদারের স্ত্রী শিক্ষা বোর্ডে অফিস সহকারী সায়মা সিরাজ মিতা ও তার ছেলে ওয়ান ব্যাংকের কর্মকর্তা আসিফ শিকদার ও পিতা সিরাজুল ইসলাম।
মামলার অভিযেগে জানা গেছে, মনির হোসেন যশোর শিক্ষা বোর্ডে চাকরি করেন। তারই সহকর্মী ছিলেন কামাল হোসেন। তাদের উভয় পরিবারের মধ্যে ভালো সম্পর্ক ছিল। কামাল হোসেন ছেলের চকরি, বিয়ে ও প্রাইভেটকার ক্রয়ের সময় মনির হোসেনের কাছ থেকে বিভিন্ন সময়ে ৯ লাখ টাকা ধার হিসেবে গ্রহন করেন। তিনি টাকা নিয়ে মনির হোসেনকে সমপরিমান টাকার অংক বসিয়ে বেশ কয়েটি চেক দেন। ২০২১ সালের শেষ দিকে কামাল শিকদার বেশ অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। তিনি হয়তো নিজেই বুঝে ছিলেন বেশি দিন বাঁচবেনা। সেই হিসেবে পাওনাদার মনির হোসেন হোসেন পরিবারকে একদিন তার বাড়িতে ডেকে আনেন। ওদিন তার শ্বশুর, ছেলে ও স্ত্রী বাড়িতে ছিলেন। এ দিন তিনি সকলের সামনে তার দেনার কথা প্রকাশ করে টাকা পরিশোধ করে দেয়ার অনুরোধ করেন স্ত্রী-সন্তানকে। তারা এ দেনার টাকা প্রথমে পরিশোধ করতে অস্বীকার করা হয় টাকার বিপরীতে তিনি চেক দিয়েছেন বলে জানালে দেনা পরিশোধে সম্মতি হন স্ত্রী-সন্তান। তার পরও কামাল শিকদার তার শ্বশুরকে তাদের সামনে ডেকে স্ত্রী-ছেলে ধারের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হলে তিনি যেন পেনসিয়ানের টাকা থেকে এ দেনা যেন পরিশোধ করেন। ওই বছরের ১১ নভেম্বর কামাল শিকদার মারা যান। সংবাদ পেয়ে মনির হোসেন তার দাফন-কাফনে অংশ নেন। দাফনের সময় তার দেনার কথা উঠায় তার মরহুম শ্বশুর সিরাজুল ইসলাম ও ছেলে পরিশোধ করবেন বলে অঙ্গীকার করেন। দীর্ঘদিন হলেও আসামিরা দেনা পরিশোধের ব্যাপারে কোন কথা বলেননি মনির হোসেনকে। এরমধ্যে তিনি জানতে পারেন আসামিরা গোপনে মৃত কামাল শিকদারের পেনসিয়ানের টাকা দুই তৃতীয়াংশ উত্তোলন করে নিয়েছেন। এ সংবাদের ভিত্তিতে মনির হোসেন লোকজন নিয়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি আামিদের বাড়ি যেয়ে পাওনা টাকা চাইলে টাকা দিবেনা বলে গালিগালাজ করে তাড়িয়ে দেন। স্থানীয় ভাবে মীমাংসায় ব্যর্থ হয়ে তিনি আদালতে এ মামলা করেছেন। #

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »