শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৮:৪৮ অপরাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
যশোরে এক মুক্তিযোদ্ধার বসতবাড়ি দখল করে নিয়েছে সন্ত্রাসীরা

যশোরে এক মুক্তিযোদ্ধার বসতবাড়ি দখল করে নিয়েছে সন্ত্রাসীরা

জয় বাংলা নিউজ প্রতিবেদক:

যশোর নতুন উপশহরে বীর মুক্তিযোদ্ধা অনানারী ক্যাপ্টেন আব্দুল হাই মোল্লার বসতবাড়ি সন্ত্রাসীরা দখল করে নিয়েছে। এমনকি সন্ত্রাসীরা বাড়ির জানালা দরজা পর্যন্ত খুলে নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় আব্দুল হাই মোল্লার মেয়ে তাহা মরিয়ম যশোর পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ করেন। এর আগে বাড়ি রক্ষার জন্য প্রধানমন্ত্রী বরাবর ও কোতয়ালি থানায়ও অভিযোগ করেন। কিন্তু তাতে কোন সমাধান হয়নি। সন্ত্রাসীরা এ বিষয় নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার জন্য উল্টো প্রাননাশসহ মিথ্যা মামলা দিয়ে বড় ধরনের ক্ষতি করার হুমকি দিচ্ছে।
অভিযোগে বলা হয়েছে, ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধুর ডাকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী থেকে ৫নং সেক্টরে সক্রিয় ভাবে স্বাধীনতা যুদ্ধে আব্দুল হাই অংশ গ্রহন করেন। সেনাবাহিনী থেকে অবসর গ্রহনের পর ১৯৯৬ সালে ১৮ আগস্ট পুলিশে কর্মরত হাবিলদার এস এম আবুল ফজলের কাছ থেকে অবসরের টাকা দিয়ে যশোর হাউজিং এস্টেটের আওতাধীন ই- ১৩৮ নং বাড়িটি ক্রয় করেন। দীর্ঘ ২০ বছর ওই বাড়িতে বসবাস করছেন। ২ জন স্বাক্ষীর উপস্থিতিতে নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে বাড়ির দলিল ও অন্যান্য কাগজপত্রাদি দিয়ে সমুদয় অর্থ নিয়ে বিক্রেতা আত্মগোপন করে। এরপর বাড়ির মালিক আবুল ফজকে না পাওয়ায় বাড়িটি আর রেজিষ্ট্রি করা হয় না। এ মতাবস্থায় ২০১৭ সালের ২৫ জানুয়ারি উপশহর পুলিশ ফাঁড়ি থেকে এস আই রহিম জনৈক নুরুন্নাহার বেগমের অভিযোগের ভিত্তিতে ই- ১৩৮ নং বাড়ি এসে বাড়ি ক্রয় সংক্রান্ত কাগজপত্রের ফটো কপি নিয়ে যায়। জনৈক নুরুন্নাহার ২০১৫ সালে আবুল ফজলের কাছ থেকে বাড়িটি ক্রয় করেছেন বলে দাবি করেন। তিনি নিজেকে একজন এস পির মা পরিচয দেন। তৎকালীন যশোরের এডিশনাল এসপি অফিসে বিষয়টি জানালে তিনি আদালতের মাধ্যমে মীমাংসার পরামর্শ দেন। এরপর জনৈক নুরুন্নাহার নানা ধরনের পরিকল্পনা করেন। এরই ধারাবাহিকতায় মুক্তিযোদ্ধা আবুল ফজলের মৃত্যুর পর জনৈক নুরুন্নাহার স্থানীয় সন্ত্রাসী মনিরুজ্জামান বাবু, সাদিকুল ইসলাম ও রাজিবসহ অজ্ঞাত নামা বহিরাগত ৪০/৫০ জন সন্ত্রাসী নিয়ে ২০ মার্চ বেলা ১২ টায় ই ব্লকের ১৩৮ নাম্বার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই মোল্লার বাড়িটি দখল করে নেয়। এসময় সন্ত্রাসীরা বাড়ির আসবাব পত্র ভাংচুর করে বাইরে ফেলে দেয়। এমনকি বাড়ির জানালা দরজা খুলে নিয়ে যায়। বাড়ি দখলের ঘটনাটি কোতয়ালি পুলিশ জানার পরও সেখানে যেয়ে কোন ব্যবস্থা নেয়নি। বর্তমানে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই মোল্লার পরিবার ন্যায় বিচারের আশায় সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে ঘুরে বেডাচ্ছেন। কিন্তু কোন সুবিচার পাচ্ছেন না। এ ঘটনায় ৩ এপ্রিল পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ করেও কোন বিচার পাননি। এর আগে ২৫ মার্চ কোতয়ালি থানায়ও বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ করা হয়। কিন্তু কোতয়ালি ওসি কোন সমাধান দেননি। অভিযোগ উঠেছে পুলিশের সাথে সন্ত্রাসী ও জনৈক নুরুনাহারের মোটা অংকের টাকা রফার কারণে যশোরের পুলিশ প্রশাসন মুক্তিযোদ্ধা আবুল ফজলের বাড়ি দখলে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়নি। এব্যাপারে আবুল ফজলের মেয়ে মরিয়ম প্রশাসনসহ মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দের সাহায্য কামনা করেছেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »