মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ১০:৪১ অপরাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
‘স্বাধীনতাবিরোধী রাজাকারদের সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে’

‘স্বাধীনতাবিরোধী রাজাকারদের সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে’

জয় বাংলা নিউজ প্রতিবেদক:

ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে রোববার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবে আলোচনা সভায় বিশিষ্টজনরা বলেছেন, স্বাধীনতা বিরোধী রাজাকারদের সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে। এ জন্য রাজাকারদের তালিকা প্রণয়নের কাজ দ্রুত শেষ করতে হবে। একইসঙ্গে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে যেন তারা বিভ্রান্ত না করতে পারে সেবিষয়ে সতর্ক থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে।
এতে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ডা. এস এ মালেক। এ সময় বক্তৃতা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান প্রমুখ। আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আ ব ম ফারুক।

অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, বঙ্গবন্ধুর অত্যন্ত কাছের চারজন মুজিবনগর সরকারের ছিলেন। ফলে এই চারজনকে পরবর্তীতে জীবন দিতে হয়েছে। তিনি বলেন, সাড়ে ৭ কোটি মানুষ যেভাবে ঐক্যবদ্ধভাবে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল সেসময়ও কিছু ষড়যন্ত্রকারী ছিল। স্বাধীনতার পরে নানা সময়ে ষড়যন্ত্র হয়েছে, এখনো হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, এই দেশে বসবাস করতে হলে ন্যূনতম যে নীতিগুলো মেনে চলা উচিত তা হলো- মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা। কিন্তু সেটা না মানা দুঃখজনক। যারা মানবে তাদেরকে বয়কটের আহ্বান জানান তিনি।

সভায় মুজিবনগর সরকারের দীর্ঘ ইতিহাস তুলে ধরেন ডা. এস এ মালেক। যুদ্ধের দিনগুলোর স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, বিশ্বে অন্যান্য দেশের বিপ্লবী সরকারের সঙ্গে মুজিবনগর সরকারের মৌলিক পার্থক্য হচ্ছে, এই সরকার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের দিয়ে গঠিত হয়। সত্তরের নির্বাচনে বিজয়ী জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে এই সরকার গঠিত হয়েছিল। যে কারণে বিশ্ববাসী সরকারকে সমর্থন জানিয়েছিল। তিনি আরো বলেন, নতুন প্রজন্মকে মুজিবনগর সরকার ও মুক্তিযুদ্ধকে জানাতে হবে। আমাদের পাঠ্যসূচিতে এই ইতিহাস সংযুক্ত করা দরকার। নয়তো একটা সময় এর মূল্য দিতে হবে আমাদের।

প্রদানমন্ত্রীর নির্দেশনার পরও রাজাকারের তালিকা তৈরিতে বিলম্বে ক্ষোভ প্রকাশ করেন অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, দ্রুত তালিকা প্রণয়নের কাজ শেষ করতে হবে। সেই তালিকা জনগণের সামনে উন্মুক্ত করতে হবে। তাদের সম্পর্কে সরকার ও জনগণকে সতর্ক থাকতে হবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »