বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৪২ অপরাহ্ন

ইসরাফিল আলম এমপির নিজ উদ্দ্যোগে গড়ে তুলেছে প্রদর্শনী খামার- উদ্বুদ্ধ হচ্ছে নির্বাচনী এলাকার বেকার যুবক

ইসরাফিল আলম এমপির নিজ উদ্দ্যোগে গড়ে তুলেছে প্রদর্শনী খামার- উদ্বুদ্ধ হচ্ছে নির্বাচনী এলাকার বেকার যুবক

ওমর ফারু,নওগাঁ-০৬(আত্রাই-রাণীনগর)প্রতিনিধিঃ-নওগাঁর রাণীনগরে নিজ উদ্দ্যোগে গড়ে তুলেছে  “পল্লী শ্রী নিকেতন” নামের একটি প্রদর্শনী খামার। এই প্রদর্শনী খামারের বিভিন্ন প্রকল্প দেখে উপজেলার অনেক বেকার যুবকরা উদ্বুদ্ধ হয়ে গড়ে তুলছেন ছোট ছোট খামার ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

উপজেলার ২নং কাশিমপুর ইউপি’র কাশিমপুর গ্রামে প্রায় ৩০ বিঘা জমির উপড় গড়ে তুলেছে  এই প্রদর্শনী খামারটি। অত্র এলাকা সহ বিভিন্ন এলাকার কৃষকদের মাঝে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তিকে ছড়িয়ে দেওয়ায় এই খামারের মুল লক্ষ্য।

এতে কৃষকরা অতি কম সময়ে কম পরিশ্রমে এই প্রযুক্তি ও পদ্ধতিগুলোকে ব্যবহার করে আরো অধিক লাভবান হবে বলে মনে করেন খামার মোঃ ইসরাফিল আলম এম,পি।

খামার সূত্রে জানা যায়, গত ২০১৫ সারের মে মাসে এই খামার তৈরির কাজ শুরু করেন নওগাঁ-০৬(আত্রাই-রাণীনগর) এর   স্থানীয় সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ জাতীয় পল্লী উন্নয়ন সমবায়  ফেডারেশনের সভাপতি মোঃ ইসরাফিল আলম এম,পি ।

এই জনপদের অবহেলিত কৃষকদের মাঝে আধুনিক ও উন্নত কৃষি প্রযুক্তিকে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্যই মূলত এমপি নিজ উদ্দ্যোগে এই প্রদর্শনী খামারটি প্রতিষ্ঠা করেছেন।

খামারটি প্রতিষ্ঠা হওয়ার ফলে  বর্তমানে এই খামারে দেশি-বিদেশি ব্রাহ্মা, ফিজিয়ান, সিন্ধুসহ বিভিন্ন প্রজাতির গরু পালন ও কম সময়ে মোটাতাজাকরণ করা হচ্ছে।

এবং এখানে অতি অল্প সময়ে উৎপাদিত হচ্ছে গরুর মাংস ও দুধ। গরুর সেটের টিনের উপড় প্লাস্টিকের পাইপের মাধ্যমে পানির ঝরণা তৈরি করা হয়েছে। এতে করে গরু-ছাগলকে গরমের হাত থেকে বাঁচানোর জন্য অতিরিক্ত কোন বৈদ্যুতিক ফ্যানের প্রয়োজন হয় না। ঝরনার পানি একবার প্রবাহিত করলে ২-৩ ঘন্টা সেট ঠান্ডা থাকে। এতে করে সাশ্রয় হচ্ছে অর্থ ও বিদ্যুৎ।

এছাড়াও এখানে এলাকার কৃষকদের মাটি পরীক্ষার জন্য স্থাপন করা হয়েছে সয়েল টেস্ট ল্যাবরেটরি যেখানে কৃষকরা বিনামূল্যে তাদের জমির মাটি পরীক্ষা করাতে পারবেন। এখানে দেশি-বিদেশি মেশ, ভেড়া ও গ্যারল সহ টার্কি পাখি, চিনা মুরগি,  দেশি-বিদেশি কবুতর পালন করা হচ্ছে।

আবার গুরুর গোবর থেকে তৈরি করা হচ্ছে বায়োগ্যাস আর গোবরগুলোকে জৈব সার হিসোবে বিক্রয় ও ব্যবহার করা সহ খামারে থাইলান্ডের কেঁচো দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে কম্পোস্ট সার। এই সার গুলো বিক্রয় হচ্ছে ২০-২৩ হাজার টাকা টন হিসাবে। এখান থেকে এই বিদেশি কেঁচোগুলো সরবরাহও করা হচ্ছে বাহিরে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »