সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৬:১৪ পূর্বাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
হেরেও কোয়ার্টার ফাইনালে লিভারপুল

হেরেও কোয়ার্টার ফাইনালে লিভারপুল

জয় বাংলা নিউজ ডেস্ক :
উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগে ইন্টার মিলানের কাছে হেরেছে লিভারপুল। হারলেও প্রথম লেগে বেশি ব্যবধানে জেতায় কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল।

মঙ্গলবার রাতে অ্যানফিল্ডে শেষ ষোলোর ফিরতি লেগে ১-০ গোলে হেরেও চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে লিভারপুল।

প্রথম লেগে ২-০ গোলে জেতায় দুই লেগ মিলিয়ে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে পরের ধাপে উঠেছে জার্গেন ক্লপের দল।

স্বাগতিকদের তিনটি প্রচেষ্টা পোস্ট ও ক্রসবারে লাগে। তা না হলে ‘হাইভোল্টেজ ম্যাচটির’ রোমাঞ্চ অনেক আগেই শেষ হয়ে যেত।

আত্মবিশ্বাসী লিভারপুল প্রথম মিনিটেই আক্রমণ শানয়। পাঁচ মিনিট পর লক্ষ্যে প্রথম শট নেয় ইন্টার। কোনোটিই অবশ্য প্রতিপক্ষকে ভাবানোর মতো কিছু ছিল না।

খেলার ৩০তম মিনিটে প্রথম গোলবঞ্চিত হয় লিভারপুল। বাঁদিক থেকে ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আর্নল্ডের ফ্রি কিকে জোয়েল মাতিপের হেড ক্রসবারে বাধা পায়।

এর পর ৪১তম মিনিটে একটা ভালো সুযোগ পেয়েছিল ইন্টার। তবে ডি-বক্সে ডান দিকের দাগের ঠিক বাইরে থেকে হাঁকান কালহানোগ্লুর নিচু ফ্রি কিক ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক আলিসন।

দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটে আবারও ব্যর্থ হয় লিভারপুল। দিয়েগো জটার ডি-বক্সে উঁচু করে বাড়ানো বল এগিয়ে গিয়ে ক্লিয়ার করতে পারেননি ইন্টার গোলরক্ষক, বল ফাঁকায় পেয়ে যান মোহামেদ সালাহ। কিন্তু তার নিচু কোনাকুনি শট পোস্টে লাগে।

প্রথমার্ধে বিবর্ণ হয়ে থাকা মার্তিনেস ৬০তম মিনিটে প্রথম ভালো একটি সুযোগ পান। কিন্তু লক্ষ্যভ্রষ্ট শটে হতাশ করেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার।

পরের মিনিটেই অসাধারণ নৈপুণ্যে লড়াই জমিয়ে তোলার ইঙ্গিত দেন মার্টিনেস। সানচেসের পাস ধরে ডি-বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত এক শটে দূরের পোস্ট দিয়ে ঠিকানা খুঁজে নেন তিনি।

বহুল কাঙ্ক্ষিত গোল পেয়ে ইন্টার শিবিরে লড়াইয়ে ফেরার যে উচ্ছ্বাস যোগ হয়, গোল উদযাপন শেষে খেলা শুরু হতেই তা মিলিয়ে যায়। থিয়াগো আলকানতারাকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন সানচেস।

প্রতিপক্ষে এক জন কমে যাওয়ার সুযোগে আরও চাপ বাড়ায় লিভারপুল। কিন্তু এদিন দুর্ভাগ্য যেন আষ্টেপৃষ্ঠে চেপে ধরেছিল তাদের। ৭৭তম মিনিটে সালাহর আরেকটি শট পোস্টে লেগে ফেরে।

পাঁচ মিনিট যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে গোল প্রায় পেয়েই যাচ্ছিল লিভারপুল। লুইস দিয়াসের শট গোলরক্ষককে এড়িয়ে লক্ষ্যেই ছিল, শেষ মুহূর্তে ছুটে এসে স্লাইড করে ফেরান আর্তুরো ভিদাল।

এতগুলো সুবর্ণ সুযোগ পেয়েও গোল না পাওয়া এবং ঘরের মাঠে হারের হতাশা থাকলেও ম্যাচ শেষে হাসিমুখেই মাঠ ছাড়ে ক্লপ ও তার শিষ্যরা।

আরেক ম্যাচে রবের্ত লেভানদোভস্কির হ্যাটট্রিকে সালসবুর্ককে ৭-১ গোলে হারিয়ে দুই লেগ মিলিয়ে ৮-২ ব্যবধানে এগিয়ে শেষ আটে ওঠে বায়ার্ন মিউনিখ।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »