শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৮:০১ অপরাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
যশোর মণিরামপুরে জোড়া খুনে একজনের মৃত্যুদন্ডের আদেশ

যশোর মণিরামপুরে জোড়া খুনে একজনের মৃত্যুদন্ডের আদেশ

স্টাফ রিপোর্টার : যশোর মণিরামপুরে জোড়া খুনের মামলায় এক আসামির মৃত্যুদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি সিরাজুল ইসলাম উপজেলার বাটবিলা গ্রামের মোমিন সরদারের ছেলে। যশোরে বৃহস্পতিবার অতিরিক্ত দায়রা জজ মোস্তফা কামাল এ আদেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পিপি বিমল কুমার রায়। ২০১২ সালের ২৯ জানুয়ারি আসামি সিরাজুল ইসলাম একই গ্রামের জমির সরদারের মেয়ে শারমিন ও ভাইপো কবীর হোসেনকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে।
এছাড়া একই মামলায় তিনজনকে খালাস দেয়া হয়েছে। তারা হলেন, সিরাজুলের স্ত্রী শিরিনা বেগম, একই গ্রামের আমিন সরদারের স্ত্রী করিমন নেছা ও মোমিন সরদারের স্ত্রী আরফা খাতুন ওরফে আরিফা।
মামলা সূত্রে জানাযায়, মণিরামপুর উপজেলার বাটবিলা মৌজার ৩৯৫ নং দাগের ছয় বিঘা জমি নিয়ে স্থানীয় জমির সরদারের সাথে আসামি সিরাজুলের বিরোধ চলছিলো। সেই জেরে সিরাজুল ২০১২ সালের ২৯ জানুয়ারি সিরাজুল সহ অন্যরা একত্রিত হয়ে এসে ওই জমিতে বেড়া দিতে থাকে। এসময় জমির সরদার ও তার পরিবারের সদস্যরা সিরাজুলদের বাধা দেয়। পরে সিরাজুল নানা ধরণের হুমকি দিয়ে চলে যায়। কিছু সময় পর গাঁছি দা নিয়ে সিরাজুল এসে জমির সরদার ও তার স্ত্রী রাশিদা বেগমকে ধাওয়া করে। এসময় জমির ও তার স্ত্রী দৌড়ে পালিয়ে যায়। সেসময় জমিরের ১৪ বছর বয়সী মেয়ে শারমিন ও ১১ বছর বয়সী ভাইপো কবীর হোসেনকে ধাওয়া দেয় সিরাজুল। প্রথমে শারমিনকে ও পরে তার ভাইপো কবীরকে কুপিয়ে হত্যা নিশ্চিত করে পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে আসামি সিরাজুলের বাড়িতে যেয়ে সিরাজুলকে খুজে না পেয়ে ঘরে আগুন জালিয়ে দেয়। এঘটনায় জমির সিরাজুলসহ ছয়জনকে আসামি করে মণিরামপুর থানায় মামলা করেন। মণিরামপুর থানার এসআই জামিরুল ইসলাম মামলাটি তদন্ত করে চারজনকে অভিযুক্ত করে ২০১২ সালের ৮ অক্টোবর আদালতে চার্জশিট জমা দেন। ওই এলাকার আমিন সরদার ও মোমিন সরদারকে চার্জশিটে অব্যহতির আবেদন করেন। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার মামলার রায় ঘোষনা করে আদালত। রায়ে আসামি সিরাজুলকে ফাঁসির আদেশ ও বাকি তিনজনকে খালাশ প্রদান করা হয়।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »