রবিবার, ২০ Jun ২০২১, ১০:১২ পূর্বাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
মারকাজ মসজিদের আইনুল উলুম মাদ্রাসাটি খুলে দেয়ার দাবি

মারকাজ মসজিদের আইনুল উলুম মাদ্রাসাটি খুলে দেয়ার দাবি

বিজ্ঞাপন

শহিদ জয়: ঐতিহ্যবাহী মারকাজ মসজিদের আইনুল উলুম মাদ্রাসাটি খুলে দেয়ার দাবি জানিয়েছেন যশোর উপশহরের মারকাজ মসজিদের মহল্লাবাসি। শনিবার দুপুরে প্রেসক্লাব যশোরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এলাকাবাসী এ দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন হাজী ওয়াহিদুজ্জামান। এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, হাজী লোকামান, আব্দুল কাদের, আতিয়ার রহমান, ছিয়ামুর রহমান,হারুনর রশিদ, মিজানুর রহমান জান, ও কামরুজ্জামান মিঠু প্রমুখ।

মারকাজ মাদ্রাসা এলাকাবাসি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়েছে, ৩৫ বছর ধরে মারকাজ মসজিদের আইনুল উলুম মাদ্রাসা পরিচালিত হয়ে আসছে। সম্প্রতি সাদ ও জুবায়ের গ্রুপের রেশারেশিতে ২১ দিন যাবত মাদ্রাসাটি বন্ধ হয়ে আছে। গত ১৪ জুন ছাত্র ভর্তিকে কেন্দ্র করে মাওলানা সাদ গ্রুপ ও মাওলানা জুবায়ের গ্রুপের মধ্যে মসজিদের মধ্যে হাতাহাতি হয়। এক পর্যায়ে মাওলানা সাদ গ্রুপের নেতৃত্বে থাকা রাজু, তাজু, উজির, ইয়ামিন, মুসল্লি নয় এমন একদল লোক এসে পূর্ব পরিকল্পনানুযায়ী মাদ্রাসার সব গেটে তালা লাগিয়ে দেয়। এর আগে মাদ্রাসার ভিতরে ঘুমন্ত অবস্থায় ৮ থেকে ১৫ বছর বয়সী ৯২ জন ছাত্র টেনে হেচড়ে বের করে দেয়া হয়। একই সময় মাদ্রাসার শিক্ষক, সুরা সদস্য ও মুরবিদের শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করা হয়। তাদের পরিধেয় পোশাক ছিড়ে ফেলা হয়। অশ্লীল ভাষায় গালিগালাচ করে মাদ্রাসা থেকে বের করে দেয়া হয়। এঘটনার পর থেকে মহল্লাবাসি মাসওয়ারার মাধ্যম সিদ্ধান্ত নেয় যশোরের ঐতিহ্যবাহী মাদ্রাসাটিতে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে দায়িত্ব নিয়ে পরিচালনা করবেন। এই লক্ষ্যেই চিঠি আকারে জেলা প্রশাসক, পলিশ সুপার, ওসি কোতয়ারি মডেল থানা, উপশহরের ইউপি চেয়ারম্যন, ও প্রেসক্লাবকে অবগত করা হয়। একই সাথে জেলা ইমাম পরিষদ, জেলা ফতোয় বোর্ড, জেলা কাওমী ওলামা পরিষদ, তাবলীগ জামাতের মাও. সাদ গ্রুপ, মাও. জুবায়ের গ্রুপের সাথে আলাদা আলাদা মিটিং করা হয়। মাও. সাদ গ্রুপ ছাড়া সকলেই এই সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়ে মাদ্রসা পরিচালনার জন্য সকল প্রকার সহযোগিতা করার আশ্বাস প্রদান করে। তারই ধারাবাহিকতায় ৫ জুন শুক্রবার জুম্মাবাদ মারকাজ মহল্লাবাসি শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করে মাদ্রাসা খুলে দেয়া হয়। সংঘর্ষের আশংকায় শনিবার সকালে প্রশাসনের উপস্থিতিতে মাদ্রাসা আবারো বন্ধ করে দেয়া হয়। আগামীকাল রবিবার সকালে সাদ ও জুবায়ের গ্রুপ নিয়ে সার্কিট হাউজে বসে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে মাদ্রাসার সমস্যা সমাধান করা হবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »