সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৫:২৮ পূর্বাহ্ন

যশোরে পুলিশ কনেস্টবল দেব প্রসাদ সাহা আবারো পুলিশ রিমান্ডে

যশোরে পুলিশ কনেস্টবল দেব প্রসাদ সাহা আবারো পুলিশ রিমান্ডে

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাচারের অভিযোগে আটক পুলিশ কনস্টেবল দেব প্রসাদ সাহার আবারও দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। । দেব প্রসাদ সাহা খুলনার তেরখাদা উপজেলা শহরের সুরেন্দ্রনাথ সাহার ছেলে। বুধবার জুডিসিয়াল ম্যজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র বিচারক গৌতম মল্লিক রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে এ আদেশ দিয়েছেন। এর আগে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছিল আদালত।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, দেব প্রসাদ সাহা ঢাকার উত্তরা ১ নম্বর আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নে চাকরির সুবাধে ২০১৪ সালের ২৭ ডিসেম্বর থেকে ২০১৮ সালের ১৭ আগস্ট পর্যন্ত বেনাপোল ইমিগ্রেশনে চাকরি করতেন। সেখানে চাকরি করাকালিন সময়ে তিনি ভারতের অনেকের সাথে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন। যে কারণে তিনি যখন তখন নোম্যানস ল্যান্ড অতিক্রম ভারতে যাওয়া-আসা করতেন। ইমিগ্রেশনে দায়িত্ব পালনকালে সেনাবাহিনীর অফিস সহকারি ও এক সৈনিকের সাথে তার পরিচয় ও সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। তারা দুইজন বেনাপোলে মাঝে মধ্যে এসে ভারতের এস চক্রবর্তী ও পিন্টু নামে দুইজনের কাছে বাংলাদেশের গোপনীয় ও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাচার করতেন। ২০১৮ সালের শেষের দিকে দেব প্রসাদ সাহা বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সম্বলিত একটি পেনড্রাইভ নোম্যানস ল্যান্ড পার হয়ে ভারতে পাচার করে। ১৫ দিন পর আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সম্বলিত পেনড্রাইভ ভারতের এস চক্রবর্তী ও পিন্টুর কাছে হস্তান্তর করে দেব প্রসাদ সাহা। গত ২৫ অক্টোবর ডিজিএফআই ও র‌্যাবের হাতে ওই সেনা সদস্য আটক হয়। এসময় তার কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ একটি পেনড্রাইভ উদ্ধার হয় এবং ভারতে তথ্য পাচারের বেশ কিছু তথ্য দেন সে। পরে বিষয়টি পুলিশ হেড কোয়ার্টার্স তদন্ত কমিটি গঠনের মাধ্যমে অনুসন্ধানে নামে। তদন্তে তাদের মোবাইল ফোনের কললিস্ট ও ভারতের পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আরেফের সাথে কথোপকথনের ভিডিও সিডির মাধ্যমে দেশের তথ্য পাচারের বিষয়টি উঠে আসে। ফলে সেনা সদস্য ও অফিস সহকারির মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহ করে ভারতের তা পাচারের বিষয়টিও দেব প্রসাদ স্বীকার করেছে। তারা রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকান্ডে জড়িত বলে প্রতিয়মান হয়েছে। এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুন খান রাষ্ট্রদ্রেীহিতার অভিযোগে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সদস্য দেব প্রসাদ সাহাকে আসামি করে ২০১৯ সালের ১৫ ডিসেম্বর মামলা করেন। এমামলার পর দেব প্রসাদকে আটক করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ঢাকা সিআইডির সাইবার ইনভেস্টিগেশন এন্ড অপারেশনস সহকারি পুলিশ সুপার কাজী আবু সাঈদ গত ১৫ সেপ্টেম্বর আসামি দেব প্রসাদ সাহার পাঁচদিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। গতকাল বুধবার আসামি দেব প্রসাদের রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে বিচারক দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »