মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন

ভারতে আশঙ্কজনকহারে দীর্ঘ হয়েই চলেছে করোনায় আক্রান্ত ও প্রাণহানি

ভারতে আশঙ্কজনকহারে দীর্ঘ হয়েই চলেছে করোনায় আক্রান্ত ও প্রাণহানি

জয় ডেস্ক।
ঊর্ধ্বমুখী নমুনা পরীক্ষায় ভারতে আশঙ্কজনকহারে দীর্ঘ হয়েই চলেছে করোনায় আক্রান্ত ও প্রাণহানির মিছিল। ভাইরাসটি ইতিমধ্যে দেশটির অর্ধ লাখের বেশি মানুষের প্রাণ কাড়ার পাশাপাশি হানা দিয়েছে প্রায় সাড়ে ২৬ লাখ মানুষের দেহে। এমতাবস্থায় দেশজুড়েই দেখা দিয়েছে উদ্বেগ। তবে, যে হারে সুস্থতা বাড়ছে তা অনেকটাই স্বস্তি দিচ্ছে ভারতকে।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৭ হাজার ৯৮১ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এতে করে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ২৬ লাখ ৪৭ হাজার  জনে ৬৬৩ জনে দাঁড়িয়েছে। যার ষাট শতাংশই চার রাজ্যের (মহারাষ্ট্র, দিল্লি, তামিলনাড়ু ও অন্ধ্রপ্রদেশ)।

অন্যদিকে, গত একদিনে প্রাণহানি ঘটেছে ৯৪১ জনের। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ৫০ হাজার ৯২১ জনের মৃত্যু হলো করোনায়। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩ কোটি ৪১ হাজারের বেশি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে সর্বাধিক সংক্রমণ ছড়িয়েছে মহারাষ্ট্রে। তারপরেই তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ, দিল্লি, গুজরাট, উত্তরপ্রদেশ, কর্নাটক এবং তেলেঙ্গানা। এদিকে বিশ্ব তালিকায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রাজিলের পরে বিশ্বের তৃতীয় সর্বোচ্চ করোনাক্রান্ত দেশ হলো ভারত। আর প্রাণহানিতে পঞ্চম।

এদিকে মহারাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লাখ ছুঁই ছুঁই। মৃত্যু হয়েছে ২০ হাজার ৩৭ জন মানুষের।

আক্রান্ত ও প্রাণহানিতে রাজধানী দিল্লিকে টপকানো তামিলনাড়ুতে মৃতের সংখ্যা ৫ হাজার ৭৬৬ জনে দাঁড়িয়েছে। আর আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ৩৮ হাজারে দাঁড়িয়েছে।

তিনে থাকা অন্ধ্রপ্রদেশে করোনার শিকার ২ লাখ ৯০ হাজারের কাছাকাছি। তবে, প্রাণহানি কিছুটা কম এখানে। যার সংখ্যা ২ হাজার ৬৫০ জন।

দিল্লিতে করোনার থাবায় প্রাণ গেছে ৪ হাজার ১৯৬ জনের। আর ভুক্তভোগীর সংখ্যা বেড়ে ১ লাখ ৫২ হাজার ৫৮০ জনে দাঁড়িয়েছে। বর্তমানে সেখানে কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসতে শুরু করেছে করোনার দাপট।

সংক্রমণ ঠেকাতে ভারতে প্রথমদিকে সামাজিক দূরত্বের উপর জোর দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এখন লকডাউনের কড়াকড়ি নেই। অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড শুরু হওয়ায় বাজার-হাট, গণপরিবহনে বেড়েছে লোকের ভিড়। বেড়েছে একে অপরের সংস্পর্শে আসার সম্ভাবনাও। তাই, প্রতিদিনই আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতা লাভ করেছেন ৫৭ হাজারের বেশি রোগী। এতে করে বেঁচে ফেরার সংখ্যা ১৯ লাখ ১৯ হাজার ৮৪২ জনে দাঁড়িয়েছে। যা ভারত সরকারকে স্বস্তি দিচ্ছে। দেশটিতে বর্তমানে অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা ৬ লাখ প্রায় ৭৭ হাজার।

জয় বাংলা নিউজ/সস

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »