বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন

বিএনপি-জামায়াত সরকারের আশ্রয়-প্রশ্রয়েই জঙ্গিরা শাখা-প্রশাখা বিস্তার ও শক্তিসঞ্চয় করেছিল.. তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ

বিএনপি-জামায়াত সরকারের আশ্রয়-প্রশ্রয়েই জঙ্গিরা শাখা-প্রশাখা বিস্তার ও শক্তিসঞ্চয় করেছিল.. তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ (ফাইল ছবি)

জয় ডেস্ক: বাংলাদেশ সরকারের তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ২০০৫ সালের এই দিনে দেশের ৬৩ জেলায় একযোগে ৫শ’র বেশি জায়গায় বোমা হামলা চালানো হয়েছিল। বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বাধীন বিএনপি-জামায়াত সরকার তখন ক্ষমতায় ছিল। তাদের আশ্রয়-প্রশ্রয়েই জঙ্গিরা শাখা-প্রশাখা বিস্তার ও শক্তিসঞ্চয় করেছিল। বিএনপি-জামায়াতের আশ্রয়-প্রশ্রয় জঙ্গিবাদ নির্মূলে বড় বাধা।

সোমবার সকালে চট্টগ্রাম মহানগরীর ফয়েজ লেক এলাকার বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে করোনা ইউনিট উদ্বোধন করার সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে  তিনি একথা বলেন।

তিনি আরও বলেন বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার জঙ্গিদমনে অনেক দেশের চেয়ে অনেক বেশী সফলতা দেখাতে সক্ষম হয়েছে। তবে জঙ্গি নির্মূল করাও সম্ভব হতো যদি বিএনপি-জামায়াত তাদের আশ্রয়-প্রশ্রয় না দিতো।

তথ্যমন্ত্রী বলেন জঙ্গিদের প্রতি বিএনপি-জামায়াতের সেই আশ্রয়-প্রশ্রয় এখনো আছে অভিযোগ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ৫০০ জায়গায় একযোগে যারা বোমা হামলা চালিয়েছিল, তাদের দোসররা বিএনপির জোটের মধ্যে আছে। যারা শ্লোগান দেয়, আমরা সবাই তালেবান, বাংলাদেশ হবে আফগান -তারা কিন্তু ২২ দলীয় ঐক্যজোটের মধ্যেই আছে।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে যতটুকু সম্ভব করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করা হয়েছে। সেটিকে অনেকটা নিয়ন্ত্রণ করতে আমরা সক্ষম হয়েছি। সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টা ও স্রষ্টার কৃপায় সেই পরিস্থিতিনিয়ন্ত্রণ করতে আমরা সক্ষম হয়েছি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে করোনা আরও নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হবো আমরা।

চট্টগ্রামে ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল প্রতিষ্ঠাতাদের ধন্যবাদ জানান এবং বলেন চিকিৎসা সরঞ্জামে সমৃদ্ধ ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল। হৃদরোগের চিকিৎসায় এ রকম বিশেষায়িত হাসপাতাল দেশে আর একটিও নেই। এ হাসপাতাল করোনা ইউনিট চালু করায় আমি কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাই।

এ সময় অন্যান্যের বক্তব্য রাখেন ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন, দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এম এ মালেক প্রমুখ।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »