রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৪:৫৬ পূর্বাহ্ন

প্রতিনিধি আবশ্যক :
বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা জয় বাংলা নিউজ ডট কম ( www.joibanglanews.com)এর জন্য জরুরী ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলা/থানা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক (খালি থাকা সাপেক্ষে) প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীদের পাসপোর্ট সাইজের ১ কপি ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, অভিজ্ঞতা ( যদি থাকে) উল্লেখ পূর্বক জীবন বৃত্তান্ত এবং মোবাইল নাম্বার সহ ইমেইলে ( joibanglanews@gmail.com ) আবেদন করতে হবে।
যশোরে খাদ্য পাওয়ার দাবিতে ক্ষুধার্তদের বিক্ষোভ

যশোরে খাদ্য পাওয়ার দাবিতে ক্ষুধার্তদের বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে খাদ্যের দাবিতে ফের বিক্ষোভ করেছে অভুক্ত মানুষজন। আজ বৃহস্পতিবার হাজার হাজার নারী পুরুষ  ঘণ্টাব্যাপী মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এসময় সড়কের দুই পাশে পণ্যবাহী অনেক গাড়ি আটকা পড়ে। 
খবর পেয়ে প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিরা ঘটনাস্থলে এসে তাদের ত্রাণ দেওয়ার আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।
এদিকে, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও রামনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বলছেন, একটি মহল উসকানি দিয়ে জনগণকে মাঠে নামিয়েছে। তবে সেই মহল সম্বন্ধে বিস্তারিত জানাননি প্রশাসনিক কর্মকর্তারা। রামনগরের চেয়ারম্যান বিক্ষোভের জন্য দুই ব্যক্তিকে দায়ী করে তাদের বিচার চেয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে দশটায় শংকরপুর এলাকায় কেন্দ্রীয় বাসটারমিনালের পুব পাশে ফুয়েল পাম্পের সামনে খুলনা-বেনাপোল মহাসড়কে বিক্ষোভে নামেন এলাকার লোকজন। শহরের দক্ষিণাংশের ওই এলাকায় মূলত শ্রমজীবী মানুষের বাস।
সকাল সাড়ে দশটার দিক থেকে একে একে লোকজন রাস্তায় বেরিয়ে আসতে থাকেন। একপর্যায়ে তারা সংখ্যায় বেড়ে ওঠেন। আটকে দেন মহাসড়ক। কিছু সময়ের মধ্যে জেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী, পুলিশ, র‌্যাবের কর্মকর্তা ও সদস্যরা সেখানে হাজির হন। রাস্তায় থাকা মানুষেরা তাদের কাছে খাদ্যের দাবি করতে থাকেন।
বিক্ষোভে অংশ নেওয়া বহু লোক বলেছেন, ‘করোনার’ কারণে কাজে যাওয়া যাচ্ছে না। ঘরে কোনো খাবার নেই। পরিবার নিয়ে তারা অনাহারে আছেন।
দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা খাদ্য প্রদানের আশ্বাস দিলে ঘণ্টাখানেক পর লোকেরা রাস্তা ছেড়ে দেন।
যশোরের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) প্রিতম সাহা জানান, এলাকাবাসী ত্রাণের দাবিতে নারী-পুরুষ সড়ক অবরোধ করেন। খবর পেয়ে চার পাঁচটি মোবাইল টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়।
তিনি জানান, কর্মহীন মানুষের মাঝে খাবার সংকট আছে। এটা ঠিক। কিন্তু রাস্তায় দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ করার মতো পরিস্থিতি হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে, একটি মহলের উসকানিতে ই ঘটনা ঘটেছে।
যশোর সদরের সহকারী ভূমি কমিশনার (ভূমি) সৈয়দ জাকির হাসান বলেন, মানুষের পেটে খিদে আছে, এটা ঠিক। তবে দেশের এই সংকটময় মুহূর্তে রাস্তায় দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ করবে- এটা ঠিক না। উসকানিদাতাদের চিহ্নিত করা হবে।
যশোর সদরের ইউএনও কামরুজ্জামান বলেন, খবর শুনে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। এদের মধ্যে যারা একেবারেই অনাহারি, তাদের চিহ্নিত করে বিকেলের মধ্যে খাবার পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হবে। পৌরসভার সচিব ও রামনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে বলা হয়েছে কর্মহীন অনাহারিদের সাধ্য অনুযায়ী খাবার পৌঁছে দিতে।
রামনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজনিন নাহার বলেন, ‘এখানে আমার ইউনিয়নের লোকের সংখ্যা কম। পৌর এলাকার বাসিন্দাই বেশি। বিক্ষোভে পৌর এলাকার লোকই বেশি। পৌর এলাকার বাসিন্দা, যারা বিক্ষোভ করছে, আমি তাদের চাল দেবো কীভাবে?’
চেয়ারম্যান নাজনিন জানান, তিনি এখন পর্যন্ত মাত্র চার টন চাল পেয়েছেন। অথচ চাহিদা রয়েছে ১০০ টনের।
রামনগরের এই চেয়ারম্যানের দাবি, স্থানীয় কামরুজ্জামান ও আবু সাঈদ নামে দুই ব্যক্তি উসকানি দিয়ে লোকজন জড়ো করে পরিস্থিতি ঘোলাটে করছেন। তাদের বিচার হওয়া উচিৎ।
এর আগে গত দুই-তিন দিনে শহর ও শহরতলীর একাধিক স্থানে একইভাবে নিম্নবিত্ত শ্রমজীবী নারী-পুরুষ-শিশুরা রাস্তায় নেমে এসে বিক্ষোভ দেখান। খাদ্যের দাবিতে তারা রাস্তায় নেমেছেন বলে জানান।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Translate »