রবিবার, ১০ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মেয়েলি ঘটনায় খুন ! যশোরে ঘরের মধ্যে মাটি খুঁড়ে কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

মেয়েলি ঘটনায় খুন ! যশোরে ঘরের মধ্যে মাটি খুঁড়ে কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

 

শহিদ জয়: প্রায় এক মাস আগে নিখোঁজ কলেজ ছাত্র পল্লবের (২০) মরদেহ উদ্ধার করা হলো যশোর সদর উপজেলার জঙ্গলবাঁধাল গ্রামের একটি কাঁচা ঘরের মধ্যে মাটিখুঁড়ে। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পুলিশ পল্লবের দুই বন্ধুকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওই মরদেহ উদ্ধার করে। পল্লব সদর উপজেলার বসুন্দিয়া ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের বিকাশের ছেলে।

কোতয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ তাসমীম আলম জানিয়েছেন, গত অক্টোবরের ১৪ তারিখে নিখোঁজ হন কলেজ ছাত্র পল্লব। তিনি যশোর সরকারি সিটি কলেজের শিক্ষার্থী। এই ঘটনায় কোতয়ালি থানায় একটি জিডি করা হয়েছিল। জিডির বিষয়টি তদন্ত করে পুলিশ।

শনিবার সকালের দিকে পল্লবের দুই বন্ধু জঙ্গলবাঁধাল গ্রামের জামাল উদ্দিনের ছেলে অপূর্ব এবং জগন্নাথপুর গ্রামের ফারুক হোসেনের ছেলে ঈশানকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে বসুন্দিয়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই সঞ্জিব কুমার মন্ডল।

জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে অপূর্ব স্বীকার করে, পল্লবকে হত্যা করে তার নানা আজিজার রহমান মাষ্টারের জঙ্গলবাঁধালস্থ বাড়ির দক্ষিণ পাশের একটি কাঁচা ঘরের মধ্যে গর্ত খুঁড়ে সেখানেই পুঁতে রাখা হয়েছে। তথ্য পেয়ে যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ক সার্কেল গোলাম রাব্বানি, কোতয়ালি থানায় ওসি মনিরুজ্জামানসহ উর্ধতন পুলিশ কর্মকর্তারা সেখানে যান এবং দুইজনের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওই ঘরের মধ্যে মাটি খুঁড়ে পল্লবের মরদেহ উদ্ধার করেন। এই ঘটনায় সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে অপূর্ব ও ঈশানকে আটক করা হয়েছে। আর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অপূর্বের নানা আজিজুর রহমান মাষ্টার ও নানী সাবিহা খাতুনকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। এই হত্যা সম্পর্কে তাদের আরো জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। আর জিডির ঘটনাটি হত্যা মামলা হিসাবে রেকর্ড করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিদর্শক তাসমীম আলম।

এদিকে পল্লব হত্যা সম্পর্কে এলাকার একটি সূত্র জানিয়েছে, গত ১৩ অক্টোবর সন্ধ্যার দিকে পল্লব একটি মেয়েকে সাথে নিয়ে জঙ্গলবাঁধাল গ্রামে বন্ধু অপূর্ব বাড়িতে যায়। অপূর্ব তার নানার বাড়িতে থাকে। ওই মেয়ের সাথে রাত কাটাতে বলে পল্লব প্রস্তাব দিলে অপূর্ব তাদের থাকার সুযোগ করে দেয়। ঘটনার দিন অপূর্বর নানা ও নানী বাড়িতে ছিলেন না। ঘটনাটি অপূর্ব ছাড়াও তার অপর বন্ধু ঈশান জানতো। ওই রাতে পল্লব ও তার বান্ধবীর অসামাজিক কাজের দৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারন করে। এরপর ওই দৃশ্য ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে অপূর্ব ও ঈশান ওই মেয়েকে চায়। এই নিয়ে পল্লবের সাথে তাদের তর্কবিতর্ক হয়। পল্লব বাঁধা দেয়ায় অপূর্ব একটি ছুরি দিয়ে তাকে আঘাত করে। সাথে সাথে পল্লব মারাত্মক আহত হন এবং মারা যান। পরে তারা দুইজনে পল্লবের মরদেহ গুম করার উদ্দেশ্যে ওই ঘরের মধ্যে মাটি খুঁড়ে সেখানেই পুঁতে রাখে। আর ওই মেয়েকে চলে যেতে সহযোগিতা করে। তবে মেয়েটির পরিচয় জানাতে পারেনি সূত্রটি।

কংগ্রেস বর্জনকারীদের অনেকেই ফিরে

আসার জন্য যোগাযোগ করছে : মেনন

স্টাফ রিপোর্টার: দশম কংগ্রেসের পর বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির নবনির্বাচিত কমিটি প্রয়াত সভাপতি অমল সেনের স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছে। আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে যশোরের বাঘারপাড়ার উপজেলার বাকড়িতে তার সমাধি সৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান নেতৃবৃন্দ।

এসময় পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন সাংবাদিকদের বলেন, দশম কংগ্রেস নিয়ে পার্টির মধ্যে কোন বিভাজন হয়নি। কিছু লোক বর্জন করলেও কংগ্রেস শতভাগ সফল হয়েছে। পার্টিকে সুসংগঠিত ও কংগ্রেসে নেয়া কর্মসূচিগুলো বাস্তবায়নে খুলনার সাংগঠনিক সভার মধ্য দিয়ে বিভাগীয় সমাবেশ শুরু হয়েছে। ধারাবাহিকভাবে তা চলবে।

তিনি আরো বলেন, যারা কংগ্রেস বর্জন করেছিলেন তাদের অনেকেই ফিরে আসার জন্য যোগাযোগ শুরু করেছেন। ফলে তাদের জন্য পার্টির দ্বার উম্মুক্ত রাখা হয়েছে।

শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পার্টির নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, পলিট ব্যুরো সদস্য আনিসুর রহমান মল্লিক, মুস্তাফা লুৎফুল্লাহ এমপি, অ্যাডভোকেট শেখ হাফিজুর রহমান, নজরুল ইসলাম, আবু বক্কর সিদ্দিকী, দিপংকর সাহা দিপু, কেন্দ্রীয় বিকল্প সদস্য সবদুল হোসেনসহ যশোর ও নড়াইলের নেতৃবৃন্দ।

 

 

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com