রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০৩:০৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
যশোর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের উদ্যোগে শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতির ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত যশোর স্টেডিয়ামপাড়ায় পুলিশিং কার্যালয় উদ্ধোধন যশোরে ৬৭ জন করোনা শনাক্ত বঙ্গমাতার ৯০তম জন্মবাষির্কী উপলক্ষে যশোর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের উদ্যোগে দোয়া ও আলোচনা ‘দুর্গন্ধ হওয়ার ৭ কারণ প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী হওয়া স্বত্ত্বেও আমার মায়ের কোনো অহমিকা ছিল না বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে নবাবগঞ্জে সেলাই মেশিন বিতরণ ইবি তরুণ কলাম লেখক ফোরামের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা যশোরে চিকিৎসার নামে ভন্ড ফকিরের বিরুদ্ধে নারীর শ্লীলতাহানী ঘটানোর অভিযোগ যশোরে ছেলে ও পুত্রবধুর বিরুদ্ধে নগদ টাকা স্বর্ণের গহনা চুরির অভিযোগে মামলা
ডিগ্রি কলেজের সভাপতি হতে পারবেন না এমপিরা

ডিগ্রি কলেজের সভাপতি হতে পারবেন না এমপিরা

জয় ডেস্ক।
কোনো ডিগ্রি কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি পদে এমপিদের মনোনয়ন বা নিয়োগকে অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় প্রকাশ করা হয়েছে। রায়ে বলা হয়েছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এমপিদের সভাপতি হিসেবে নিয়োগ বা মনোনয়ন সংবিধানের মূল উদ্দেশ্যের সঙ্গে সাংঘর্ষিক।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় প্রকাশ করেন। রায় প্রকাশের বিষয়টি জানিয়েছেন এ মামলার রিটকারী আইনজীবী মো. হুমায়ন কবির।

ছয় পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ রায়ের পর্যবেক্ষণে বলা হয়েছে, একজন এমপিকে জনগণের ভোটে নির্বাচিত হতে হয়। অপরদিকে গভর্নিং বডি নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষের পদমর্যাদা এমপির নিচের পদমর্যাদার। সংশ্লিষ্ট এলাকার এমপি যদি গভর্নিং বডির সভাপতি হন তাহলে কার্যত ওই গভর্নিং বডি এক ব্যক্তির প্রতিষ্ঠানে পরিণত হতে বাধ্য।

রায়ে আরো বলা হয়, হাইকোর্ট ও আপিল বিভাগের এ সংক্রান্ত আগের রায় পর্যালোচনা করে এটা কাঁচের মতো স্পষ্ট যে, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ফাজিল ও কামিল মাদরাসা, সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডিতে স্থানীয় এমপিদের সভাপতি হিসেবে নিয়োগ বা মনোনয়ন সংবিধানের মূল উদ্দেশ্যের সহিত সাংঘর্ষিক।

আদালত বলেন, এমপিদেরকে জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ আইন প্রণয়নে সার্বক্ষণিক নিবেদিত থাকতে হয়, এছাড়া গভর্নিং বডির সভাপতির পদ এমপি পদের সঙ্গে একেবারে বিপরীত।

ডিগ্রি কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি পদে এমপিদের অবৈধ ঘোষণা করে ২০১৯ সালের ২৫ নভেম্বর এ রায় দেন হাইকোর্ট। মামলার বিবরণে জানা যায়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ২০১৬ সালের ১৬ জুন এমপি এস এম জগলুল হায়দারকে সাতক্ষীরা শ্যামনগর উপজেলার আতরজান মহিলা কলেজের সভাপতি পদে মনোনয়ন দেন।

ওই মনোনয়নের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন ওই কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এস এম আফজালুল হক। এরপর হাইকোর্ট রুল জারি করেন। রুলের শুনানি শেষে রায় দেন আদালত।

জয় বাংলা নিউজ/ডেবা

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা নিষেধ।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com