মঙ্গলবার, ১৯ মে ২০২০, ০৮:০০ পূর্বাহ্ন

করনীয়:
করোনা প্রতিরোধে সচেতন হই। ঘন ঘন সাবান দিয়ে হাত ধুই। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হই।
শিরোনাম :
দিনাজপুরে পশুখাদ্যে ক্ষতিকর ডলোমাইট এবং মাটি মেশানোর অপরাধে ব্যাবসায়ীকে জরিমানা করোনা পরিস্থিতি নিয়ে দিনাজপুর সিভিল সার্জনের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ যশোরে লক ডাউন শিথিল প্রত্যাহার করা হয়েছে দিনাজপুরে বাস শ্রমিকদের মাঝে চাল ও নগদ অর্থ প্রদান  করোনা প্রতিরোধে ঔষুধ গুলো এন্টিবডি তৈরি করতে কার্যকর ভূমিকা পালন করবে…এমপি ইসরাফিল  যশোরে ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরো ১ নারী করোনা আক্রান্ত, সনাক্ত মোট ৯২জন দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে সড়ক  দুর্ঘটনায় নিহত ১ দিনাজপুরে শিক্ষকদের ব্যাক্তিগত উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ  ত্রাণ সহায়তা নিয়ে কোন ভাবে বিতর্কিত করার চেষ্টা করলে তার পরিণাম মোটেও শুভ হবে না….মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি দিনাজপুরে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ১০ জন কোভিড -১৯ পজিটিভ
অনলাইন ক্লাস পুনর্বিবেচনার দাবি ইবি ছাত্র মৈত্রীর

অনলাইন ক্লাস পুনর্বিবেচনার দাবি ইবি ছাত্র মৈত্রীর

দিদারুল ইসলাম রাসেল,ইবি প্রতিনিধিঃ ক্লাস নামক অপরিপক্ব পদ্ধতিতে পাঠদানের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা।
আজ শুক্রবার (৮মে) এক যৌথ বিবৃতিতে এ কথা জানানো হয়েছে।
বিবৃতিতে বলেন,বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে দেশের মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা বাধাগ্রস্থ। পত্রিকা মারফত জানা গেছে, সেশনজট নিরসনে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন অনলাইনে ক্লাস কার্যক্রম পরিচালনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। গত সপ্তাহে মাননীয় উপাচার্য মহোদয়ের অনলাইন ক্লাসের আহ্বান শীর্ষক ভিডিও বার্তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে এ নিয়ে শিক্ষার্থীরা নানা শঙ্কার কথা প্রকাশ করে। সিংহভাগ শিক্ষার্থীর মতামত উপেক্ষা করে অনলাইন ক্লাসের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবী জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এমন অনাকাঙ্ক্ষিত সিদ্ধান্তে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতৃবৃন্দ এক যৌথ সংবাদ বিবৃতি দিয়েছেন।
বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান প্রশাসন শিক্ষার্থীদের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ ও বাস্তবায়নের ফলে শিক্ষার্থীবান্ধব প্রশাসন হিসেবে পরিচিত পেয়েছে এবং শিক্ষার্থীদের ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছে। কিন্তু সম্প্রতি সেশনজট নিরসনের নামে অনলাইন ক্লাস পদ্ধতির যে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে তা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মর্মাহত করেছে। অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ শিক্ষার্থী গ্রামীণ অঞ্চলে বসবাস করে। প্রত্যন্ত অঞ্চলে ইন্টারনেটের ধীর গতির জন্য অনলাইনে জরুরী কার্যক্রম সম্পাদন করা দুষ্কর হয়ে উঠে। এমতাবস্থায় অনলাইন ক্লাস চালু হলে মন্থর গতির ইন্টারনেটে সংশ্লিষ্ট কোর্সে অস্পষ্ট ধারণা সৃষ্টি হবে। আধো-আধো জ্ঞান নিয়েই সমাপ্ত হবে একেকটি কোর্স। ফলে দেশ পাবে অপরিপক্ক গ্রাজুয়েট।
নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্ষপঞ্জি অনুযায়ী আগামী ৬ জুন, ২০২০ পর্যন্ত পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। তবু শিক্ষার্থীমত উপেক্ষা করে অনলাইন ক্লাসের সিদ্ধান্ত শিক্ষার্থীদের ভাবিয়ে তুলেছে। শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি বিবেচনা করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এমন খোঁড়া পদ্ধতির পাঠদান কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এমতাবস্থায় অনলাইন ক্লাস পদ্ধতির সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রতি নেতৃবৃন্দ আহ্বান জানান।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com