বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ০৯:১৪ পূর্বাহ্ন

করনীয়:
করোনা প্রতিরোধে সচেতন হই। ঘন ঘন সাবান দিয়ে হাত ধুই। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হই।
শিরোনাম :
ময়মনসিংহে ঘাতক ট্রাক কেড়ে নিল দুইজনের প্রাণ করোনায় মৃতের সংখ্যায় চীনকে ছাড়িয়ে গেল যুক্তরাষ্ট্র পুতিনের সঙ্গে হাত মেলানোর পর রুশ চিকিৎসকের করোনা শনাক্ত অর্ধশতাধিক ছিন্নমূলমানুষের তিন বেলা ক্ষুধার জ্বালা মেটাচ্ছেন রাজা নড়াইলে বমি-শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তির পর যুবকের মৃত্যু সুনামগঞ্জে বিরল প্রজাতির ‘লজ্জাবতী’ বানরের সন্ধান দিনাজপুরে পল্লী ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে খাদ্য-দ্রব্য বিতরণ চট্টগ্রামে চায়ের দোকান হতে ৩টি টিভি জব্দ করেন ইউএনও ধামরাইয়ে ৫ হাজার পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিলেন এমপি বেনজির আহম্মেদ বাড়ি বাড়ি গিয়ে দরিদ্র ও খেটে খাওয়া মানুষদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন “রক্তবন্ধু”
যশোরে করোনা সন্ধেহে যশোরে পুলিশ সদস্য আইসোলেশনে

যশোরে করোনা সন্ধেহে যশোরে পুলিশ সদস্য আইসোলেশনে

শহিদ জয় : যশোর পুলিশ লাইনে কর্মরত এক পুলিশ কনস্টেবলকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। যশোর স্বাস্থ্য বিভাগ বিষয়টি নিশ্চিত করলেও পুলিশ বিভাগ থেকে কিছুটা অস্বীকার করা হচ্ছে।
স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, শনিবার (২১ মার্চ) সকাল দশটার দিকে একজন কনস্টেবল যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। করোনা ইউনিটে শারীরিক পরীক্ষা শেষে সন্দেহজনক হওয়ায় তাকে হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসারের কাছে পাঠানো হয়। সেখান থেকে তাকে হোম আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। অসুস্থ ওই কনস্টেবলের বরাত দিয়ে আরো জানিয়েছে, তিনি পুলিশ লাইনে যে রুমে ছিলেন, সেই রুমের ৬ সদস্যের মধ্যে একজনকে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে ইতোপূর্বে ঢাকায় পাঠানো হয়। ২ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। আর শনিবার এই কনস্টেবলকে হাসপাতালে আনার পর হোম আইসোলেশনে পাঠানো হলো।
জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. আরিফ আহমেদ বলেন, সন্দেহভাজন এক পুলিশ কনস্টেবলকে শনিবার হাসপাতালে আনা হয়। তার শরীরে করোনাভাইরাস জনিত লক্ষণ থাকায় তাকে হোম আইসোলেশনে পাঠানোর নির্দেশ দিয়ে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন বলেন, আপনারা আমার আগেই তথ্য জেনে যান। খোঁজ নিয়ে পরে জানানো হবে।
যশোর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম জানান, জ্বর শ্বাসকষ্ট নিয়ে একজন কনস্টেবলকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল। তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠাতে বলা হয়েছে। তাকে পুলিশ লাইনে, না বাড়িতে পৃথক করে রাখা হবে সে সিদ্ধান্ত এখনো নেওয়া হয়নি। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন শিকদার সহকর্মীদের ছুটির বিষয়টি দেখভাল করেন। তিনি একটি জরুরি সভায় আছেন। ফিরলে দ্রুত সে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। কতজন পুলিশ সদস্য হোম কোয়ারেন্টাইনে জানতে চাইলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন শিকদার বলেন, একজনকে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। আজকের বিষয়ে আমার জানা নেই, খোঁজ নিতে হবে।

খবরটি শেয়ার করুন..




© All rights reserved  2019 Joibanglanews.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com